বৈরুতে ভয়াবহ দুটি বিস্ফোরণে ১০ জন নিহত

0
20
বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরন। ছবি: দ্যা টাইমস অব ইসরাইল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ দুটি বিস্ফোরণে ১০ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এতে শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুরের এই বিস্ফোরণের ঘটনায় শহরজুড়ে ভবনের জানালার কাচ এবং কয়েকটি বাড়ির ছাউনি ভেঙে পড়ে। বিস্ফোরণের কারণ এখনো জানা যায়নি।

প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব বুধবার দেশটি জাতীয় শোক ঘোষণা করেছেন।

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, ভয়াবহ দুটি বিস্ফোরণের পর লেবানন থেকে ১৫০ মাইল দূরের এলাকাও কেঁপে ওঠে। সাইপ্রাসের একটি এলাকা বিস্ফোরণের পর কেঁপে ওঠে।

বিবিসি, রয়টার্স ও আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, বৈরুতের বাসিন্দারা দূর থেকেও ধোঁয়ার কুণ্ডলী দেখতে পান। রাজধানীর বেশ কিছু এলাকা বিস্ফোরণের পর কেঁপে উঠে। শহরে প্রাণকেন্দ্র থেকে ঘন ধোঁয়ার কুণ্ডলী উঠতে দেখা গেছে। বিস্ফোরণের শব্দে বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী সাদ হরিরির সদর দপ্তরসহ বিস্ফোরণে অনেক ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নেভাতে ঘটনাস্থলে ছুটে গেছেন।

লেবাননের একটি হাসপাতালের নার্স বলেছেন, এখানে আহত ৪০০ জনের চিকিৎসা চলছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনাস্থলের ১০ কিলোমিটার দূরের বাড়িগুলোও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এলাকায় স্থানীয়ভাবে তোলা ছবি ও ভিডিওতে ভাঙা কাচ ও দরজা-জানালার ভগ্নাংশ রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখা গেছে।

লেবাননের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বেশ কিছু মানুষ হতাহত হয়েছে এবং বড় ধরনের সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

টুইটারে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা গেছে, গোলাপি রঙের ধোঁয়ার কুণ্ডলী আকাশে উঠছে।

বন্দরের কাছে বিস্ফোরকের গুদাম আছে বলে জানিয়েছে লেবাননের রাষ্ট্র-পরিচালিত ন্যাশনাল নিউজ এজেন্সিসহ (এনএনএ) নিরাপত্তা কর্মকর্তারা। এলাকাটিতে রাসায়নিকেরও মজুদ আছে বলে জানিয়েছেন আরেক কর্মকর্তা।

কয়েকটি খবরে বলা হচ্ছে, বিস্ফোরণটি দুর্ঘটনাবশত ঘটে থাকতে পারে।

ন্যাশনাল নিউজ এজেন্সি ‘এনএনএ’ এর আগে প্রাথমিক খবরে বন্দরের কাছের বিস্ফোরকের গুদামে আগুন লাগার কথা জানিয়েছিল।

বিস্ফোরণটি এত শক্তিশালী ছিল যে বাসিন্দারা ভেবেছিল ভূমিকম্প হয়েছে। মানুষজন চিৎকার, ছুটোছুটি করেছে। আশেপাশের বাড়িঘরের জানালার কাচ ভেঙে,ভবন ধসে অনেকে আহত হয়েছে।